The more dangerous Neymar when he bloody, the big win PSG

গত শনিবার ফরাসি লিগ ওয়ানের ম্যাচে মুখোমুখি হয় পিএসজি-নিস। এ থেলায় দারুণ শুরু করে পিএসজি শুধু তাই নয়, পিএসজি সুপারস্টার নেইমারও খুব ভাল খেলেন। পিএসজির গোল পেতেও খুব একটা সময় লাগেনি। ২২ মিনিটে নিশানাভেদ করে দলকে লিড এনে দেন ব্রাজিলিয়ার তারকা নেইমার। এর পর মুহুর্মুহু আক্রমণে প্রতিপক্ষকে কোণঠাসা করে ফেলে পিএসজি।
প্রথম হাফে তেমন সাফল্য আসেনি। তবে বিরতির বাঁশি বাজার খানিক আগে সাফল্য পায় পিএসজি। ৪৬ মিনিটে নিখুঁত শটে ব্যবধান ২-০ করেন ক্রিস্টোফার এনকুনকো।

বিরতির পরও চাপ আরও বাড়িয়ে দেয় পিএসজি। এ ম্যাচে দুর্দমনীয় ছিলেন নেইমার। অপ্রতিরোধ্য নেইমারকে ঠেকাতে ৬০ মিনিটে মারাত্মক ফাউল করেন ওয়াইলান সিপ্রিয়েন। তার কনুইয়ের আঘাতে মুখ দিয়ে রক্ত ঝরতে থাকে ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ডের। এতে হলুদ কার্ড দেখেন সিপ্রিয়েন। এর পর আরও দুর্ধর্ষ হয়ে উঠেন পিএসজি গতি তারকা । বলা যায় নেইমারের জোড়া গোলে নিসকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে দ্য পারিসিয়ানরা।

আরেকটি গোল আদায় করে ছাড়েন তিনি। ইনজুরি টাইমে বল জালে জড়ান ২৬ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান এ তারকা ফুটবলার। এ নিয়ে এবার পিএসজি মোট গোল করল ২৪টি। তিন ম্যাচের নির্বাসন শেষে মাঠে ফিরলেন কিলিয়ান এমবাপ্পে।। তবে ঠিকানায় বল পাঠাতে পারেননি এবারের লিগে অপরাজেয় থাকল পিএসজি। ৮টি খেলে সব কটি জিতে পয়েন্ট ২৪। এ লিগে ১৯৩৬ সালের পর কোনো ক্লাব শুরুতেই টানা ৮ ম্যাচ জেতেনি। সবশেষ জিতেছিল লিলা।